ফলের উপকারিতা

কালো জিরার উপকারিতা ও গুরুত্বপূর্ণ ১০ টি ঔষধি গুনাগুন

3.1/5 - (7 votes)

কালো জিরার উপকারিতা সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। মৃত্যু ছাড়া সকল রোগের মহা ঔষধ কালো জিরা এবং মধু। অনেক আগে থেকেই মানুষ কালো জিরা ঔষধ হিসাবে ব্যবহার করে আসতেছে। আমাদের ইসলামিক দৃস্টিতেও কালো জিরার উপকারিতা অনেক। বিভিন্ন ঔষাধালয় কালো জিরা এবং কালো জিরার তেল ঔষধ হিসাবে ব্যবহার করে। তাই আমরা বলতে পারি কালোজিরা শুধু মসলা হিসাবে নয় ঔষধ হিসাবেও অনেক উপকারী। কালোজিরার বীজ থেকে তৈরী হয় তেল।

প্রায় শতাধিক পুষ্টি উপাদান রয়েছে কালো জিরাতে। এই উপাদান গুলো আমাদের শরীর ভালো রাখার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। কালো জিরার তেল অনেক উপকারী মানব জীবনের জন্য। কালোজিরা কবিরাজী, আইয়োর্বেদীয়, এবং ইউনানী চিকিৎসায় অনেক বেশি ব্যবহার হয়। কালো জিরাতে রয়েছে ফসফরাস, লৌহ এবং ফসফেট। কালো জিরাতে থাকে কেরোটিন যা মানবদেহে ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। কালো জিরা অম্ল রোগের ভালো প্রতিষেধক।

কালো জিরার গুনাগুন

কালো জিরাতে রয়েছে প্রোটিন, ভিটামিন B1, ভিটামিন B2, ভিটামিন B3, ক্যালসিয়াম, পাচক এনজাইম, ৫.২৬ মিলিগ্রাম ফসফরাস, ১৮ মাইক্রোগ্রাম, লৌহ, কার্বো-হাইড্রেট, জীবাণুনাশক এবং অম্লনাশক উপাদান। কালোজিরা হরমোন ঠিক রাখে এবং প্রস্রাব সংক্রান্ত রোগ প্রতিরোধ করে। এছাড়াও রয়েছে লিনোলিক এসিড, অলিক এসিড।

কালোজিরার ঔষধি উপকারিতা

হজমের সমস্যায় কালো জিরার ব্যবহার

হজমের উন্নতি হলো কালো জিরার অনেক উপকারের মধ্যে একটি । আমরা প্রতিদিন যে খাবার খেয়ে থাকি তা হজমের দরকার হয়। হজম ভালো হলে শরীর ভালো থাকে। তাই পরিপূর্ণ হজম দরকার। কালো জিরা খাবারকে ভালোভাবে হজম হতে সাহায্য করে। ১ থেকে ২ চা চামচ কালোজিরা বেটে প্রতিদিন ৩ বার খেতে হবে। এভাবে একমাস খেলে হজমের ভালো উপকার হবে।

আরো পড়ুনঃ  আমলকির উপকারিতা, অপকারিতা এবং ঔষধি গুণাগুণ

ক্যান্সার প্রতিরোধ করে।

মানবদেহের ক্যান্সার প্রতিরোধ করে কালো জিরাতে থাকা কেরাটিন। কালো জিরাতে প্রায় ১০০ টি রোগের প্রতিষেধক থাকে। তার মধ্যে ক্যান্সার রোগের প্রতিষেধক ও থাকে।

যৌন সমস্যার সমাধান

প্রতি দিন কালো জিরা আর মধু একসাথে খেলে যৌন সমস্যার সমাধান পাওয়া যায়। কালো জিরার তেল যৌন দুর্বলতার জন্য খুব উপকারী। নিয়মিত সেবন করলে চিরস্থায়ী সমাধান পাওয়া যায়।

চুল পড়া প্রতিরোধ করে

উপকারি এই কালোজিরা চুল পড়া প্রতিরোধ করে। চুলের জন্য কালো জিরার উপকারিতা অপরিসীম। কালোজিরা চুলের গুঁড়ায় পুষ্টি পৌঁছে দেয় ফলে চুল শক্ত হয়।
নিয়মিত অলিভ অয়েল আর কালোজিরার তেল সেবন করলে চুল পড়া কমবে। এবং চুলের গুঁড়া শক্ত হবে।

স্মরণশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

মানবদেহে কালোজিরা রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে। তাই প্রতিদিন কালো জিরা বা কালোজিরার তেল খেলে মস্তিষ্কে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক থাকে। ফলে স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পায়।

ব্যথা নাশক হিসাবে কাজ করে।

ব্যথা কমাতে কালো জিরার তেলের জুড়ি নেই। যেকোনো ধরণের ব্যথা কালো জিরার তেলে প্রশমিত হয়। কষলো জিয়ার তেল বাথের ব্যাথায় ভালো কাজ করে। মালিশ করার আগে তেল হালকা গরম করে নিতে হবে।

আরো পড়ুনঃ  নিয়মিত পাকা বা কাঁচা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা

মায়ের বুকের দুধ বৃদ্ধি করে কালো জিরা।

গর্ববতী মায়ের বুকে দুধ বৃদ্ধি করে কালো জিরা। রাতে শুয়ার আগে ৫-১০ গ্রাম কালোজিরা দুধের সাথে মিশিয়ে খেলে দুধ বৃদ্ধি পাবে। এভাবে ১৫-২০ দিন খেলে আল্লাহর রহমতে বুকের দুধের পরিমান বেড়ে যাবে। এ ক্ষেত্রে কালো জিরার বত্তা করে খেতে পারেন ভাতের সাথে।

ডায়াবেটিস রোগ নিয়ন্ত্রণ করে

নিয়মিত খালি পেটে কালোজিরা খেলে ডায়াবেটিস রোগ নিয়ন্ত্রণ করা যায়। কালো জিরা রক্তে গ্লোকোজের পরিমান নিয়ন্ত্রণ করে। তাই ডায়াবেটিস রোগীর প্রতিদিন খালি পেটে কালো জিরা খাওয়া ভালো।

অধিক ঋতুস্রাব নিয়ন্ত্রণ করে

অনিয়মিত ঋতুস্রাব এর কারণে অনেক শারীরিক ক্ষতি হয়। অনিয়মিত ঋতুস্রাব থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য কালো জিরা খেতে পারেন। এতে শারীরিক অবস্থা ভালো থাকবে।

জ্বর, সর্দি মাথা ব্যাথায় কালো জিরা

আমাদের প্রায় জ্বর সর্দি এবং মাথা বেথা হয়ে থাকে। কালো জিরা সর্দি, জ্বর এর খুব ভালো কাজ করে। খুব বেশি শীতের মধ্যে কালো জিরা আর মধু একসাথে খেলে শরীর গরম হয়।

কালো জিরার উপকারিতা

আরও পড়ুন:

কালো জিরা সম্পর্কিত প্রশ্ন ও উত্তর

কালো জিরার বৈজ্ঞানিক নাম কি ?

উত্তরঃ কালো জিরার বৈজ্ঞানিক নাম হলো Nigella Sativa Linn .

আরো পড়ুনঃ  জাফরানের উপকারিতা, পুষ্টিগুণ এবং জাফরানের দাম

কালো জিরাতে কয়টি উপাদান থাকে ?

উত্তরঃ প্রায় ১০০ টির বেশি রাসায়নিক পদার্থ থাকে।

গর্ভাবস্থায় কি কালোজিরার তেল খাওয়া যাবে ?

উত্তরঃ না।

আমাদের শেষ কথা

উপকারি কালো জিরা নিয়মিত পরিমান মতো খেতে হবে। অতিরিক্ত পরিমান কালোজিরা খাওয়া ঠিক না। অতিরিক্ত কালো জিরা খেলে হিতে বিপরীত হতে পারে। গর্ববতী অবস্থায় কোনোভাবেই কালো জিরার তেল গ্রহণ করবেন না। আমরা অনেকেই কালো জিরার তেল বা কালো জিরা খেতে পারি না। যারা না খেতে পারি তারা আস্তে আস্তে অভ্যাস করবো। যাদের কালো জিরা হজম হয় না তাদের কালো জিরা না খাওয়াই ভালো। দেখে শুনে বাজার থেকে ভালো কালো জিরা কিনবেন। কৃতিম কালো জিরা কিনা বা খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

Back to top button
x
error: Content is protected !!