টেক সম্পর্কিত ব্লগ

হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারের নিয়ম – Rules for using a hair dryer

আমাদের চুল কে দ্রুত শুকানোর জন্য হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করি। তাই হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারের নিয়ম জানা দরকার। বর্তমানে শহর গ্রাম সব দিকের মানুষ তাদের চুল শুকানোর কাজে হেয়ার ড্রয়ার ব্যবহার করে।

একটা সময় ছিল যখন হেয়ার ড্রায়ার শুধুমাত্র মেয়েরাই ব্যবহার করত। তবে বর্তমানে ছেলেরা ও অনেক বেশি ব্যবহার করছে। তাদের চুলের স্টাইল এর জন্য হেয়ার ড্রয়ার ব্যবহার করে। হেয়ার ড্রায়ার সঠিক ভাবে ব্যবহার এর মাধ্যমে আমরা আমাদের চুল শুকনো ছাড়াও চুলে আনতে পারি ভালো ভলিউম এবং পারফেক্ট হেয়ার স্টাইল।

তবে হেয়ার ড্রায়ার যদি আপনি সঠিকভাবে ব্যবহার করতে না পারেন তাহলে আপনার চুল পড়ে যাওয়ার মত বড় সমস্যা হতে পারে। আর তাই আজকের আর্টিকেলে হেয়ার ড্রায়ার এর সঠিক ব্যবহার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। আজকের আর্টিকেলটা থাকছে মূলত হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার নিয়ে।

হেয়ার ড্রায়ার কি? ( What is Hair Dryer )

আমরা প্রায় সবাই জানি হেয়ার ড্রায়ার কি। হেয়ার ড্রায়ার এর অর্থ হচ্ছে চুল শুকানোর মেশিন। এটিকে আমরা আমাদের চুল দ্রুত শুকানোর কাজে ব্যবহার করে থাকি। আবার অনেকে এটিকে তাদের চুলের ভলিউম বা স্টাইল নিয়ে আসার জন্যে ও ব্যবহার করে।

হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারের নিয়ম

আমাদের চুল শুকানোর জন্য হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করার সঠিক নিয়ম

চুল শুকানোর মেশিন সঠিকভাবে ব্যবহার না করলে অবশ্যই আপনার চুলের স্বাস্থ্য এর জন্য অনেকটা ক্ষতিকর হয়ে উঠবে। তাই এর সঠিক ব্যবহার আমাদের জেনে নিতে হবে। নিচে এটি ব্যাবহার করার কয়েকটি নিয়ম দেওয়া হয়:

শ্যাম্পু ব্যবহার করা।

প্রথমত আপনাকে আপনার চুলগুলোকে প্রস্তুত করতে হবে। অর্থাৎ হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারের পূর্বে আপনার চুল ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন। পরিষ্কার জল এবং শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু একটা কথা অবশ্যই মাথায় রাখবেন নিয়মিত শ্যাম্পু ব্যবহার করা অবশ্যই চুলের জন্য ক্ষতিকর।

চুলগুলো পরিষ্কার তাওয়াল দিয়ে হালকাভাবে মুছতে হবে।

আপনার চুলটি পরিষ্কার তাওয়াল দিয়ে হালকা ভাবে মুছে ফেলুন। এখন আপনি বলতে পারেন হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করেই তো চুল শুকনো যায় তাওয়াল কি প্রয়োজন?

কিন্তু আপনি যতই মেশিন ব্যবহার করে চুল শুকাতে চান। প্রথমে আপনার চুলগুলো পরিষ্কার করে সেটিকে তাওয়াল দিয়ে কিছুটা মুছে নিতে হবে।

আরো পড়ুন: দামের সাথে শীর্ষ ব্র্যান্ডের দেশী বিদেশী গ্যাসের চুলা

মিডিয়াম হিটে রেখে চুল শুকানো।

আপনার চুল শুকাতে একটি ভালো মানের হেয়ার ড্রায়ার মেশিন নেওয়ার চেষ্টা করুন। যেখানে অনেক ধরনের সেটিং রয়েছে। যেটাকে খুব সহজে আপনি কাস্টোমাইজ করতে পারেন। খুব বেশি হিট দিয়ে আপনার চুল শুকাতে যাবেন না। সেটিং করে মিডিয়াম রেখে চুল আসতে আসতে শুকাবেন।

বেশি তাপমাত্রায় হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করবেন না।

অতিরিক্ত তাপমাত্রায় হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে কখনো আপনার চুল শুকাবেন না। কারণ অতিরিক্ত তাপের মাঝে যদি আপনি এই মেশিন ব্যবহার করে আপনার চুল শুকাতে চান। তাহলে এটি শুধু মেশিনের ক্ষতি করবে না বরং এটা আপনার চুলের জন্য অনেকটা ক্ষতিকর।

এটি মাথায় শুকনো খুশকি সমস্যা ও মাথা বেশি চুলকানো সমস্যার প্রধান কারণ। এছাড়াও চুলের জন্য অতিরিক্ত হিট অবশ্যই ক্ষতিকর।

হেয়ার ড্রায়ার থেকে মাথার মিনিমাম দূরত্ব বজায় রাখুন।

আপনার মাথার চুল হেয়ার ড্রায়ার থেকে ১৫-২০ সেমি দূরত্বে রাখুন। একদম কাছে থেকে চুল শুকাতে যাবেন না। অবশ্যই দুটির মধ্যে কিছুটা দূরত্ব থাকে।

চুল কিলিপ করা।

চুল মুছে ফেলার পর আপনার চুলগুলোকে একপাশে কিলিপ দিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। পরবর্তীতে মেশিন ব্যবহারের পূর্বে সেটিকে খোলা রেখে চুল শুকাতে পারেন। এতে আপনার সুবিধা হবে মেশিনটি ব্যবহার করতে।

দুই হাত নিয়ম অনুসারে ব্যবহার করুন।

আপনি আপনার বাম হতে চিরুনি এবং ডান হাতে হেয়ার ড্রায়ার মেশিনটি নিন। যার ফলে আপনার চুল শুকানোর কাজ করতে অনেকটা সুবিধা হবে।

চুল ২০% ভেজা অবস্থায় হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করুন।

হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করা অবস্থায় চুল ২০% ভেজা অবস্থায় থাকতে হবে। কখনোই একেবারে শুকনো চুলে ড্রায়ার ব্যবহার করবেন না। এতে চুলের অনেক ক্ষতি হয়, চুল ভেঙে যায়। ২০% ভেজা থাকা অবস্থায় যদি আমরা চুল শুকাবো। তাহলে চিরুনি দিয়ে আমরা চুলে যে শেপ আনতে চাই সেই শেপটি খুব সুন্দর ভাবে চুলে আসবে। এবং আমরা আমাদের মনের মত শেপ পেতে পারি।

Oil ম্যাসাজ করা।

যদি আপনি রেগুলার ড্রায়ার ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনাকে অবশ্যই Oil ম্যাসাজ করতে হবে। নরমালি সবাই প্রায় প্রতিদিন এটি করে থাকে। তবে যারা অয়েল ম্যাসাজ করেন না তাদের রেগুলার ড্রায়ার ব্যবহার করার ক্ষেত্রে ম্যাসাজ করতে হবে।

কোনো হিট প্রটেকশন স্প্রে অথবা হেয়ার সিরাম ব্যবহার করা।

চুল শুকানোর মেশিন ব্যবহার করার পূর্বে চেষ্টা করবেন হেয়ার সিরাম অথবা কোনো হিট প্রটেকশন স্প্রে ব্যবহার করতে। এগুলা ব্যবহার করবেন এই কারণে, যখন আপনি ড্রায়ার ব্যবহার করবেন তখন আপনার চুল খারাপ হয়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে। আর তাই ড্রায়ার মেশিন ব্যবহার করেও যাতে আমাদের চুলে কোনো ক্ষতি না হয়। সেটির জন্য আমাদের ব্যবহার করতে হবে হেয়ার সিরাম অথবা যেকোনো হিট প্রোটেকশন।

আরো পড়ুন: জুসার মেশিনঃ ব্লেন্ডার বা জুসার মেশিন কেনার গুরুত্বপূর্ণ টিপস

হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারের সতর্কতা

উপরে আমরা হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করার বেশকিছু নিয়ম সম্পর্কে জানলাম। তাও আমি আলাদাভাবে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারের কিছু সতর্কতা সম্পর্কে আপনাদের বলে দিচ্ছি।

হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারের নিয়ম
  • ড্রায়ার মেশিন এর ঠান্ডা এবং গরম দু’রকমের বাতাস থাকে। যদি আপনি ড্রায়ার ব্যবহার এ রেগুলার হন তাহলে ঠান্ডা বাতাস ব্যবহার করে আপনার চুল শুকানোর চেষ্টা করুন। এটা আপনার চুলের তেমন কোন ক্ষতি হবে না।
  • হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারে সব সময় চেষ্টা করুন একটু দূর থেকে আপনার চুলে বাতাস লাগানোর। যাতে করে এটি চুলকে খারাপ করে দিতে না পারে।
  • যদি আপনি ড্রায়ার ব্যবহার নিয়মিত হন। তাহলে অবশ্যই আপনাকে চুলের বিশেষ যত্ন নিতে হবে। যেমন ধরুন অয়েল ম্যাসাজ করতে হবে। চেষ্টা করবেন চুলে ন্যাচারাল অয়েল ব্যবহার করতে।
  • চুলের ক্ষতি এড়াতে ড্রায়ার ব্যবহারের ক্ষেত্রে হেয়ার সিরাম বা হিট প্রোটেকশন অবশ্যই ব্যবহার করুন।

চুল শুকানোর মেশিন এর ব্যবহার ছাড়া যেভাবে চুল শুকাবেন

গোসল করে এসে চুল শুকানো অনেক কঠিন একটি কাজ। যার জন্য প্রায় সবাই হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করে থাকে। তবে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারে চুল পড়ে যাওয়ার মত বড় সমস্যা দেখা দিতে পারে। হেয়ার ড্রায়ার মেশিনের হিট চুলের গোড়ায় লেগে চুল কে অনেক বাজে ও খারাপ করে দেয়।

তবে আপনি চাইলে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার না করেই আপনার চুলকে প্রাকৃতিক উপায়ে শুকিয়ে নিতে পারেন। তবে চলুন এই নিয়ে কয়েকটি টিপস্ জেনে নেওয়া যাকঃ

  • গোসল করে এসে অনেকে তাওয়েল দিয়ে মাথা মোছার কথা বলে থাকেন। তবে তাওয়েল এর বদলে পাতলা কাপড় ব্যবহার করতে পারেন। পাতলা কোনো কাপড় অথবা গামছা দিয়ে চুল হালকা ভাবে মুছে ফেলুন। পাতলা কাপড় দিয়ে এইভাবে কয়েকবার মাথার চুল মুছে নিলেই কোনো প্রকার ড্রায়ার ব্যবহার ছাড়াই চুল শুকিয়ে যাবে।
  • আপনি গোসল করে এসে চুলগুলো তাওয়েল বা কাপড় দিয়ে হালকা মুছুন। টেবিল ফ্যান চালিয়ে তার সামনে বসে নিজের চুল শুকাতে পারেন। টেবিল ফ্যান না থাকলে সিলিং ফ্যান দ্বারা চুল শুকাতে পারবেন। এটি বেশ কার্যকরী একটি উপায়।
  • গোসল করে আসার পর স্বাভাবিকভাবেই চুলের গোঁড়ায় গোঁড়ায়  অনেক পানি জমে থাকে। আর তাই একদম বিতর থেকে ভালো ভাবে চুল শুকাতে হলে চিরুনি নিয়ে বসুন। যে উপায়ে চুল শুকান না কেন তার কিছুক্ষণ পরপর চিরুনি দিয়ে চুল গুলোকে আঁচড়ে নিন। এতে চুল অনেক তাড়াতাড়ি শুকাবে।

আমাদের শেষ কথা

বন্ধুরা আজকে আমরা হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার বেশ কয়েকটি নিয়ম সম্পর্কে জানলাম। পাশাপাশি আরও জানতে পারলাম হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারের সতর্কতাগুলো সম্পর্কে।

তবে আপনি যদি হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার নিয়মিত হন। তাহলে অবশ্যই উপরে নিয়মগুলো মেনে এটি ব্যবহার করবেন। তা না হলে আপনার চুলের অবস্থা খারাপ হয়ে যেতে পারে।

আর্টিকেলটা ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে দিতে পারেন। কোন সমস্যা থাকলে মন্তব্য করে জানাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button