Breaking News
জুসার মেশিন

জুসার মেশিনঃ ব্লেন্ডার বা জুসার মেশিন কেনার গুরুত্বপূর্ণ টিপস

বাজারে বিভিন্ন রকমের জুসার মেশিন পাওয়া যায়। এসব জুসার মেশিন বিভিন্ন কারণে আলাদা দামের হতে পারে। কাজের ধরণ এবং ব্যবহারের উপর নির্ভর করে এদের দাম। এখানে কিছু ব্লেন্ডার বা জুসার মেশিনের দাম নিয়ে আলোচনা করবো। এখন বাজারে বিদেশী ব্রান্ডের জুসারের সাথে দেশি ব্রান্ডের জুসার পাওয়া যায়। বাজারের সেরা কিছু ব্লেন্ডার বা জুসার মেশিন।

  • ওয়াল্টন জুসার মেশিন
  • সিঙ্গার ব্লেন্ডার
  • কিয়াম ব্লেন্ডার বা জুসার মেশিন।
  • মিনিস্টার ব্লেন্ডার মেশিন।
  • ফিলিপস ব্লেন্ডার।
  • ভিশন ব্লেন্ডার মেশিন।

জুসার বা ব্লেন্ডার মেশিনের দাম এবং বিবরণ।

ওয়ালটনের জুসার মেশিনের দাম

ওয়াল্টন বাংলাদেশের একটি কোম্পানি।  এই কোম্পানি প্রায় ১২ রকমের জুসার /ব্লেন্ডার/মিক্সার মেশিন বানায়। দেশীয় ব্র্যান্ডের ওয়াল্টন খুবই ভালো। ওয়ালটনের এসব মেশিন বিভিন্ন আকার আকৃতির হয়ে থাকে। মেশিনগুলোর কালারও আলাদা আলাদা হয়। আপনি আপনার কাজের সুবিধা অনুযায়ী  বড় বা ছোট নিতে পারেন।

ওয়ালটনে এই জুসার মেশিনগুলো সারা দেশে পাবেন। দেশের যেকোনো জায়গাতে ওয়ালটনের শো-রুমে পাবেন। এগুলো ছোট, মাঝারি অথবা ভর যেকোনো রকমের হতে পারে।

কোয়ালিটি ভেদে যাদের দামের পার্থক্য রয়েছে। জুসার গুলোর সর্বোচ্চ দাম ৩৯৯০ টাকা। এই দামের কিছুটা তারতম্য হতে পারে। ব্লেন্ডারের সর্বনিম্ন দাম হতে পারে ১৪৫০ টাকা। এই পণ্যগুলোর ৬ মাসের ওয়ারেন্টি দেওয়া থাকে।

সিঙ্গার ব্লেন্ডার

অনেক ধরণের ব্লেন্ডারের মধ্যে সিঙ্গার ব্লেন্ডার অন্যতম। বাজারে বিভিন্ন দামের ব্লেন্ডার রয়েছে। সিঙ্গার ব্লেন্ডারের সর্বোচ্চ দাম হতে পারে ৯০০০ টাকা।  সিঙ্গার ব্লেন্ডারের সর্বনিম্ন দাম ৪৫০০ টাকা। এসব ব্লেন্ডার বিভিন্ন মডেলের হয়ে থাকে।  যেমন, লম্বা, গুলাকৃতি, এবং জগ  আকৃতির। ওয়ালটনের মতো দেশের যেকোনো জায়গাতে আপনি এই ব্লেন্ডার পাবেন।

আরও পোস্ট পড়ুন: দামের সাথে শীর্ষ ব্র্যান্ডের দেশী বিদেশী গ্যাসের চুলা

কিয়াম  ব্লেন্ডার

কিয়ামের বিভিন্ন মডেল ও সাইজ রয়েছে। এই গুলো  মোটামোটি কম দামের হয়ে থাকে।  কিয়াম ব্লেন্ডার সর্বোচ্চ ৮০০০ এবং সর্ব নিম্ন ৬০০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যায়।

মিনিস্টার

মিনিস্টার ব্লেন্ডার অনেক ভালো। মিনিস্টারের এত বেশি মডেল নেই।  কিন্তু যাদের এক ব্লেন্ডার দিয়ে অনেক রকমের কাজ করা যায়। মিস্টার ব্লেন্ডার ১৫০০ থেকে ৪০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। মিনিস্টার ব্লেন্ডার শো রুম এ পাওয়া যায়।

ফিলিপস ব্লেন্ডার

এই ব্লেন্ডার আপনি খোলা  বাজার বা শো রুম থেকে নিতে পারেন।  এদের বেশ কয়েক রকমের ব্লেন্ডার রয়েছে। এসব ব্লেন্ডারের দাম ১২৫০ টাকা থেকে শুরু হয়। 

এসব ব্লেন্ডার ছাড়াও আরো অনেক রকমের ব্লেন্ডার পাওয়া যায় বাজারে।  এদের মধ্যে রয়েছে vigo, nova, lg, samsung, sharp, panasonic, sony, vitamix, best, jaipan ইত্যাদি।

ব্লেন্ডার কিনার গাইড লাইন

ব্লেন্ডার কিনার কিছু গুরুত্ব পূর্ণ বিষয় রয়েছে।  একটি ব্লেন্ডার কিনার আগে যে বিষয়গুলো আপনার জানা দরকার।  কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আলোচনা করা হলো। 

মেশিনের ব্লেড

ব্লেড একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।  ব্লেন্ডার কিনার আগে ভালো ব্লেড দেখে কিনতে হবে। অবশ্যই স্টেইননলেস স্টিলের ব্লেড দেখে কিনতে হবে। কারণ স্টেইননলেস স্টিলের ব্লেড মরিচা ধরে না। বেশিভাগ সময় পানিতে কাজ করা হয়। পানিতে কাজ করার ফলে মরিচা পরে। তাই মেশিন কিনার সময় স্টিলের ব্লেড দেখে কিনতে হবে।

অন্য পোস্ট পড়ুনঃ রান্না ঘরের ১০টি ভুল কাজ (যেগুলো আপনাকে জানতে হবে )

অপসন সংখ্যা

মোটর পরিচালনা করার জন্য অপসন সংখ্যা থাকে। অপসন সংখ্যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। আপনার কাঙ্খিত ব্লান্ডারটি অপসন সংখ্যা দেখে কিনবেন। অপসন সংখ্যার সাথে ব্লান্ডারের দামের কম বেশি হয়ে থাকে। তাই আপনার বাজেটের মধ্যে অপসন সংখ্যার ব্লান্ডার কিনতে হবে।

জুসার মেশিন

মেশিনের সেফটি

অটো সুইচ এর মেশিন কিনবেন। এতে আপনি এবং আপনার নিরাপত্তা নিশ্চিত থাকবে। অটো সুইচ থাকলে মেশিন নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় গরম হলে অফ হয়ে যাবে। এতে আপনি এবং আপনার মেশিন নিরাপদ থাকবে।

মেশিনের ওয়ারেন্টি

মেশিন কিনার সময় অবশ্যই ওয়ারেন্টি দেখে নিবেন। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে মেশিন নষ্ট হলে যেনো ঠিক করে নিতে পারেন। ওয়ারেন্টি কার্ড থাকলে টাকা ছাড়াই ঠিক করে নিতে পারবেন ওদের শো রুমে থেকে। মেশিন কিনার সময় তাই ওয়ারেন্টি নিশ্চিত করুন।

মোটর ক্যাপাসিটি

ব্লেন্ডার কিনার সময় মোটর ক্যাপাসিটি দেখে কিনুন। বেশি কাজের জন্য কম watt এর মোটর কিনবেন না। কমপক্ষে ৫০০ watt এর মোটর দেখে কিনুন। তাহলে আপনি সব ধরণের কাজ করতে পারবেন। অথবা আপনার কাজের সুবিধানুযায়ী ২০০ watt বা ৩০০ watt এর কিনতে পারেন। কম watt এর মোটর কিনলে মোটর পুড়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে।

আমাদের শেষ কথা

জুসার কেনার জন্য আমাদের এই টিপস গুলো অনুসরণ করুন। অন্যথায়, সঠিক দামে আপনার কাঙ্কিত জুসার নাও পেতে পারেন। বাজারে অনেক অসাধু ব্যবসায়ী আপনাকে ঠকাতে পারে। তাই জুসার কেনার সময় সঠিক নিয়ম অনুসরণ করুন। বিভিন্ন রকমের টিপস পেতে আমাদের ওয়েবসাইট ফলো করুন। অথবা আমাদের ফেইসবুক পেজ অনুসরণ করুন।

About আবিদ হাসান আবির

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *