< জাফরানের উপকারিতা, পুষ্টিগুণ এবং জাফরানের দাম - সঠিক তথ্যের ঘর
ফলের উপকারিতা

জাফরানের উপকারিতা, পুষ্টিগুণ এবং জাফরানের দাম

আমরা কম বেশি সবাই জাফরান সম্পর্কে জানি। কেউ কেউ আমরাই জাফরান ব্যবহারও করেছি। কিন্তু একটি বিষয় এটি এতটাই ব্যয়বহুল যে সবার পক্ষে এটা ব্যবহার করা সম্ভব নয়। কিন্তু আপনি যদি অল্প পরিমাণ জাফরান ব্যবহার করতে পারেন তাহলে ওর মাধ্যমে আপনি অনেক উপকার পাবেন। জনপ্রিয় এই উপাদানটির উপকারিতার কথা বলে শেষ করা যাবেনা। আজকের আর্টিকেলে থাকছে জাফরানের উপকারিতা ও কার্যকারিতার কথা। তাহলে চলুন দেরী না করে জেনে নেয়া যাক জাফরানের উপকারিতা ও কার্যকারিতা সম্পর্ক।

সূচিপত্র বা ইনস্ট্যান্ট কন্টেন্ট

জাফরান কি বা জাফরান চেনার উপায়।

জাফরান সাধারণত ক্রোকাস স্যাটিভা নামের একটি এক্সোটিক বা বহিরাগত ফুল থেকে আহরিত হয়। এই উপাদানটি সাধারণত ইরান, ভারত এবং গ্রীসের কিছু এলাকাতে হয়ে থাকে। সাধারণত এই উপাদানটি বাংলাদেশে না জন্মানোর কারণে আমাদের দেশে এর দাম টা অনেক বেশি। এই উপাদান ফুড কালারিং এজেন্ট হিসেবে বিভিন্ন খাবারে দেয়া হয়ে থাকে। এই ফলটি ৩৫০০ বছর আগে থেকে চাষ হয়ে আসছে। এবং এই ফলটি ৯০ টি রোগের ওষুধ হিসেবে কাজ করে থাকে। এই উপাদানটি যেসব রোগের ক্ষেত্রে সমাধান দিয়ে থাকে-ঠান্ডা, কাশি, ঘুম না হওয়া এসব রোগ ছাড়াও আরো নানা ধরনের রোগে কার্যকারী।

জাফরানের পুষ্টিগুণ

জাফরানের রয়েছে ম্যাঙ্গানিজ, এন্টি ইনফ্লামেটরি এবং এন্টি ফাংগাল এজেন্ট যা সাধারণত ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণ করে শরীরের প্রয়োজনীয় হরমোনের বিকাশে সহায়তা করে। তাছাড়া এতে রয়েছে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিন সি। যা আপনার শরীর ও ফেইস কে ইনফেকশন হওয়ার সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে। আর এর স্পেশাল সুগন্ধযুক্ত স্বাদ খাবারে নিয়ে আসে আলাদা এক টেস্ট। তাছাড়া এতে রয়েছে এন্টিমুটাজেনিক এবং অ্যান্টিসেপটিফ এজেন্ট যা টক্সিকেশন সরিয়ে স্ক্রিনের সেনসিটিভিটি দূর করে থাকে।

তাছাড়া এতে থাকা অ্যান্টি সোলার এজেন্ট রোদে পোড়া কালচে দাগ দূর করে সানবার্ন থেকে রক্ষা করে। ত্বকে খুবই ভালো ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে থাকে এটি। শুধু তাই নয়, এটিই স্কিনের ইরিটেশন দূর করে স্কিনকে হাইড্রেট রাখে। আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা এর মাধ্যমে অনেক বৃদ্ধি পেয়ে থাকে।

জাফরানের উপকারিতা

আরও পড়ুন: নিয়মিত পাকা বা কাঁচা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা

জাফরানের দাম

জাফরান খুব পুষ্টিকর একটি মশলা। জাফরানের চাষ সব দেশ হয় না। খুব কম সংখক দেশেই জাফরান চাষ করা হয়। প্রতি কেজি জাফরানের দাম প্রায় ৫০০০ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী টাকায় যার পরিমান ৪00000 টাকা বা তার থেকে বেশি। এটা পৃথিবীর সব থেকে দামি মসলা।

আরো পড়ুনঃ  মেথির উপকারিতা ও মেথির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে সঠিক তথ্য

জাফরান কি স্বাস্থ্যের জন্য ভালো

জাপানের মধ্যে রয়েছে সাধারণত প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। তাছাড়া এর স্বাস্থ্য গুণের কথা বলে শেষ করা যাবে না। জাফরান সাধারণ সর্দি-কাশির পাশাপাশি হার্টের সমস্যা, ব্লাড সুগার,পেটের সমস্যা, মানসিক স্ট্রেস, অনিদ্রা থেকে মুক্তি দিয়ে থাকে। তাছাড়া জাফরানের আরেকটি কার্যকারী গুণ হলো জাফরান ওজন কমাতে সাহায্য করে থাকে।

জাফরান ছোট-বড় সবার জন্য নিরাপদ একটি খাদ্য। আপনারা অনায়াসেই কোনরকম সংশয় না করেই এটি ডায়েটে যুক্ত করতে পারেন। মিষ্টি সুগন্ধযুক্ত এই মসলা আপনার খাবারের যেমন অন্য একটি স্বাদ এনে দেবে তেমনি এর সাহায্যে আপনারা মুক্তি পাবেন নানান ধরনের শারীরিক সমস্যা থেকেও।

জাফরানের স্বাস্থ্য উপকারিতা

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

জাফরানের রয়েছে বিস্ময়কর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। আপনি যদি এক চিমটে জাফরান ব্যবহার করেন। তাহলে এই এক চিমটে জাফরান আপনাকে ১৫ টি শারীরিক সমস্যা থেকে নির্বিঘ্নে মুক্তি দিবে। জাফরানের রয়েছে পটাশিয়াম যা সাধারণত উচ্চরক্তচাপ ও হার্টের বিভিন্ন সমস্যা থেকে আপনার শরীরকে রক্ষা করে থাকে।

গর্ভাবস্থায় জাফরান খেলে শরীরে অনেক উপকার হয়। যেমন, রক্তচাপ দূর করে , ক্লান্তি দূর করে।

হজম শক্তি বৃদ্ধি করে।

জাফরানের আরেকটি অসাধারণ গুণ হলো এটি হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। আপনার যদি হজমে কোন সমস্যা হয়ে থাকে আপনি নিয়মিত জাফরান সেবন করেন তাহলে আপনার হজমের সমস্যা দূর হবে ।

নতুন কোষ সৃষ্টি করে।

জাফরানে থাকা পটাশিয়াম আমাদের শরীরের নতুন কোষ সৃষ্টি করতে সহায়তা করে। শুধু তাই নয় এই উপাদানটি ক্ষতিগ্রস্ত কোষ মেরামত করতেও কার্যকারী ভূমিকা পালন করে।

মেয়েদের মাসিক অবস্থায় জাফরানের উপকারিতা

জাফরান অবস্থিত নানান ধরনের প্রাকৃতিক উপাদান মস্তিষ্ককে রিলাক্স করতে সহায়তা করে। এতে করে মানসিক চাপ এবং বিষন্নতা জনিত বিভিন্ন ধরনের সমস্যা থেকে খুব সহজেই মুক্তি পাওয়া যায়। মেয়েদের মাসিকের অস্বস্তিকর ব্যথা এবং মাসিক শুরু হওয়ার আগে যে অস্বস্তি হয়। সেটা দূর করতে জাফরান খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

আরো পড়ুনঃ  তুলসী পাতার উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ বিস্তারিত বর্ণনা

জ্বর কমায়

জ্বর কমাতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে জাফরান। এতে থাকা ক্রসিন নামক উপাদান টি জ্বর কমাতে সাহায্য করে।

শ্বাস-প্রশ্বাসের উন্নতি ঘটায়

আপনি যদি নিয়মিত জাফরান সেবন করতে পারেন তাহলে শ্বাস-প্রশ্বাসের বিভিন্ন সমস্যা থেকে যেমন -অ্যাজমা, পারটুসিস, কাশি এবং বসে যাওয়া কফ দূর করতে এটি দারুন ভূমিকা পালন করে।

অনিদ্রা দূর করে

জাফরানে রয়েছে অনিদ্রা বা ঘুম না হওয়ার সমস্যা দূর করার জাদুকরি ক্ষমতা। আপনার যদি অনিদ্রার সমস্যা থেকে থাকে তাহলে আপনি ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক গ্লাস দুধে এক চিমটে জাফরান মিশিয়ে রাত্রে শোয়ার আগে খাবেন। এতে করে অনিদ্রা সমস্যা দূর হয়ে থাকে।

মাড়ির ব্যথা প্রতিরোধ করে।

যদি সামান্য একটু জাফরান নিয়ে মাড়িতে ম্যাসাজ করা যায়। তাহলে দাঁত ও জিহ্বার নানা সমস্যা থেকে পরিত্রান পাওয়া যায়।

দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখে।

জাফরান দৃষ্টিশক্তি উন্নত করার পাশাপাশি চোখের ছানি পড়ার সমস্যা থেকে মুক্তি দিয়ে থাকে।

শরীর দুর্বলতা প্রতিরোধ করে।

জাফরানে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান দাঁতের ব্যথা, জয়েন্ট ব্যথা, মাংসপেশির ব্যথা ও দুর্বলতা দূর করতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে।

গ্যাস প্রতিরোধক

যাদের গ্যাসের সমস্যা রয়েছে তাদের জন্য জাফরান হল একটি কার্যকরী ওষুধ। জাফরান অ্যাসিডিটি ও গ্যাসের মতো সমস্যা থেকে খুব সহজেই মুক্তি দিয়ে থাকে।

কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করে।

জাফরান দেহের কোলেস্টেরল এবং ট্রাইগ্লিসারাইড নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে।

স্মৃতিশক্তি প্রখর করে।

মস্তিষ্কের সুষ্ঠু গঠন বা উন্নতি করতে জাফরানের ভূমিকা অনস্বীকার্য। স্মৃতিশক্তি এবং চিন্তা ক্ষমতা উন্নত করতে জাফরান কার্যকারী ভূমিকা পালন করে।

স্নায়ুতন্ত্র রক্ষা করে

এই ফলটি আলজাইমার এবং পারকিনসন রোগ থেকে দূরে রেখে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস থেকে কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্র কে রক্ষা করে।

কিডনী ভালো রাখে

কিডনী, যকৃত এবং মূত্রনালীর কঠিন রোগ গুলো থেকে খুব সহজেই মুক্তি দিয়ে থাকে জাফরান। তাছাড়া ক্যান্সার ও টিউমার নিরাময় করার জন্যও জাফরানের উপকারিতা অনসিকার্য। এটি নিয়মিত খাওয়ার ফলে আপনি লিভারের বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন খুব সহজেই।

তাছাড়া, আপনি প্রতিদিন এক গ্লাস দুধের সাথে মিশিয়ে জাফরান খাবেন। তাহলে আপনার শরীরকে নিয়ে আপনার চিন্তা করা লাগবে না। এতে করে আপনার শরীরের অজানা অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। সাধারণত এক গ্লাস জাফরান মিল্ক বাচ্চার মস্তিষ্ক সক্রিয় করতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে।

জাফরানের উপকারিতা

ত্বকের ভালো রাখে।

আপনার তৈলাক্ত ত্বক নিয়ে যদি আপনি সমস্যায় থাকেন। আপনার ত্বক যদি আপনি ভেতর থেকে উজ্জ্বল করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনি এক গ্লাস দুধের সাথে জাফরান মিশিয়ে নিয়মিত সেবন করতে থাকুন। কেননা আমরা ত্বকের বাহিরে যা কিছু মাখি না কেন ভেতর থেকে ত্বককে পরিপূর্ণ পুষ্টি না দিতে পারলে তো কোন সময় উজ্জ্বল হবে না।

আরো পড়ুনঃ  মধু খাওয়ার উপকারিতা ও নিয়ম এবং মুখে মধু মাখার উপকারিতা

তাছাড়া ত্বকের আর একটি মারাত্মক সমস্যা বলিরেখা দূর করতে সাহায্য করে এই জাদুকরী ফলটি। আর আপনার যদি চুল পড়া সমস্যা থাকে তাহলে দুধের সঙ্গে জাফরান মিশিয়ে মাথার ত্বকে লাগালে চুল পড়া বন্ধ হয়। এবং নতুন চুল গজানোর সম্ভাবনা থাকে।

জাফরানের তেলের উপকারিতা

চুলের যত্নে জাফরানের ভূমিকা অনেক। চুলের যত্নে জাফরানের তেলের উপকারিতা।

  • চুল লম্বা করার জন্য জাফরানের তেল ব্যবহার করা হয়। চুলের ঝলমলে উজ্জ্বল ভাব ফিরে আসে। তাই যাদের চুল বড় হয় না তারা এই তেল ব্যবহার করতে পারেন।
  • ১ মাস ব্যবহার করলে চুল ৩ ইঞ্চি লম্বা হতে পারে। এই তেল নিয়মিত ব্যবহার করলে টাক মাথায় চুল গজাবে।
  • জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি ব্যবহার করতে পারেন। এই থেরাপি জাফরানের নির্জাস সহ হারবালের ১০ টি উপাদান নিয়ে তৈরী। এই উপাদান খুব তাড়াতড়ি চুল গজাতে সাহায্য করে।
  • এটি চুলের ঘুড়ায় পুষ্টি সরবরাহ করে। যার ফলে চুল খুব তাড়াতাড়ি বড় হয়। জাফরানের থেরাপি চুলের মধ্যে পর্যাত অ্যামিনো এসিড সরবরাহ করে।

জাফরান হেয়ার অয়েল ব্যবহারের নিয়ম

  • এই তেল নিয়মিত ব্যবহার করলে উপকার পাবেন। মাথার চুল ঘন ও শক্ত হওয়ার জন্য নিয়মিত প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে জাফরানের তেল ব্যবহার করতে হবে।
  • চুল পরে যাদের মাথা ফাঁকা হয়ে গেছে তারা দিনে ২ বার এই তেল ব্যবহার করবেন। নিয়মিত রাতে ঘুমানোর আগে এবং সকালে। এতে আপনার চুল তাড়াতাড়ি গজাবে এবং বড় হবে।

জাফরান নিয়ে মানুষের কিছু প্রশ্ন ও উত্তর

জাফরানের তেল কোথায় পাওয়া যায় ?

ভালো কোনো কসমেটিকস দোকানে বা অনলাইন শপে।

জাফরানের তেলের দাম ?

আজকাল বিভিন্ন অনলাইন শপে জাফরানের তেল পাওয়া যায়। আমরা চাইলেই এখন হাতের নাগালে এই তেল কিনতে পারি। ১৫০ ml জাফরানের তেলের দাম ৪৫০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা।

আমাদের শেষ কথা

এতক্ষণে আপনাদের বুঝতে আর বাকি নেই জাফরান আমাদের শরীরের কি কি উপকার সাধন করে। জাদুকরী এই ফলটির রয়েছে নানান ধরনের উপকারিতা। আপনি নিয়মিত জাফরান খাওয়ার ফলে আপনি নিজেই জানেন না আপনি কত ধরনের রোগ থেকে মুক্তি পাবেন।। তাই সুস্থ থাকতে হলে অবশ্যই মাঝে মধ্যে জাফরান খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

You cannot copy content of this page

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker