টেক সম্পর্কিত ব্লগ

গেম খেলে টাকা ইনকাম ( গেম খেলে কিভাবে টাকা ইনকাম করবেন )

গেম খেলে টাকা ইনকাম, কি অবাক লাগছে। অবাক লাগার কিছুই নেই। সত্যি সত্যি গেম খেলে টাকা ইনকাম করা যায়। চাইলে আপনিও টাকা ইনকাম করতে পারবেন গেম খেলে। অনলাইনে এমন অনেক খেলা আছে যেগুলো থেকে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। যেমন লুডু খেলে ইনকাম করা।  

বর্তমান সময়টা এমন একটা সময়ে এসে গেছে যেখানে আপনি চাইলেই একটি বিষয়ে দক্ষ হয়ে টাকা ইনকাম করতে পারেন। গেম যদি আপনার একটা শখ হয়ে থাকে তাহলে এটাকে কাজে লাগাতে পারেন। যারা গেম খেলায় অনেক দক্ষ তারা ইনকাম করতে পারেন গেম খেলে।

স্কুল বা কলেজ পড়ে এমন অনেকেই আছে যারা গেম খেলতে পছন্দ করেন। আপনি আপনার পছন্দের এই শখটাকে কাজে লাগিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

গেম খেলে যারা ইনকাম করতে পারবে

টাকা উপার্জন করার সহজ কোনো উপায় নেয়। টাকা উপার্জন করতে হলে তো আপনাকে কষ্ট করতেই হবে। এখানে আপনার ২ টা জিনিস খুব দরকার হবে ইনকাম করতে। প্রথমত, গেমে দক্ষতা আর দ্বিতীয়ত হলো প্রচুর ইচ্ছাশক্তি।  

গেম খেলে ইনকাম করার জন্য আপনাকে অবশ্যই এই বিষয়ে দক্ষ হতে হবে। আপনার প্রচুর ইচ্ছা থাকতে হবে। আপনাকে হার মেনে নেওয়া যাবে না লেগে থাকতে হবে। তবেই আপনি আপনার দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।  

তাই বলা যায়, যাদের ধৈর্য এবং অধিক পরিশ্রম করার ইচ্ছা আছে তারাই পারবে গেম খেলে ইনকাম করতে। আবার এক্ষেত্রে প্রতারিত হবার আশঙ্কা রয়েছে। অনেক দেখবেন আপনাকে অনেক সহজে টাকা যাকে করার উপায় বলবে। আপনি সেগুলো শুনবেন না কারণ পরিশ্রম ছাড়া টাকা পাওয়া যায় না ভাই। ওরা আপনাকে লোভ দেখিয়ে আপনার কাজ থেকে টাকা নেওয়ার চেষ্টা করবে। তাই সাবধান থাকবেন।

গেম খেলে টাকা ইনকাম করার জন্য যেসব জিনস প্রয়োজন হবে।

  • অনলাইনে আপনাকে দক্ষ হতে হবে।
  • Video গেমের প্রতি ইচ্ছা
  • গেমে দক্ষ হওয়া।
  • Video Edit জানতে হবে।
  • মোবাইল বা কম্পিউটার।
  • ইন্টারনেট কানেকশন

কোন কোন প্লাটফ্রমে টাকা ইনকাম করা যায় গেম খেলে।

অনেকগুলো প্লাটফ্রমের থেকে আজকে আপনাদের সামনে ৫ টি প্লাটফ্রম নিয়ে কথা বলবো।

  • গেম টেষ্টার হয়ে আয়
  • Twitch এ গেমিং ভিডিও আপলোড করে আয়
  • গেমিং টুর্নামেন্ট খেলে
  • ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করে আয়
  • গেমিং ইউটিউবার হয়ে আয়

আরও পড়ুনঃ কিভাবে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করা যায়

গেম খেলে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়

গেম টেষ্টার হয়ে আয়

আপনি যদি ভালো মানের একজন খেলোয়াড় হয়ে থাকেন তাহলে গেম টেষ্টার হয়ে ইনকাম করতে পারেন। গেম টেষ্টার মানে হলো যেকোনো নতুন গেম আপনি খেলে দেখবেন গেম তা কেমন, মানুষ এটা কত সহজে খেলতে পারবে। এক কোথায় বলতে গেলে গেম তা কেমন সেটাই আপনাকে বোঝতে হবে।  

গেম খেলে টাকা ইনকাম

  বিভিন্ন ধরণের গেম কোম্পানিগুলো গেম টেষ্টাদের দিয়ে তাদের গেম টেস্ট করিয়ে থাকেন। আপনি গেম টেস্টার হতে হলে আপনাকে গেম এর বিষয়ে অনেক কিছু জানতে হবে। বুঝতেই তো পারছেন একটা নতুন গেম আসলে সেটা নিয়ে আপনাকে খেলতে হবে। তারপর কোম্পানিকে আপনি ব্যাকফিট দিবেন ওরা আপনাকে ডলার দিবে।

Twitch এ গেমিং ভিডিও আপলোড করে আয়

Twitch হলো YouTube এর মতো একটি প্লাটফ্রম। Twitch এর মধ্যে শুধু গেমিং ভিডিও আপলোড করা যায়। Twitch এ টাকা ইনকাম করা খুব সহজ এবং পরিশ্রম ও কম হয়।   আপনি যে ভিডিওগুলো YouTube আপলোড করবেন সেগুলো আবার Twitch এ আপলোড করতে পারবেন। তাহলে বলা যায় যে আপনার একবার পরিশ্রমে ডাবল বেনিফিট পাছেন।   Twitch এ ইউটুবের মতো এত বেশি subscriber এবং viewer দরকার হয় না। ১৫- ২০ জন ফলোয়ার হলেই টাকা ইনকাম করা যায়। তাই আপনি আপনার গেমিং খুব সহজেই Twitch আপলোড করুন।

গেমিং টুর্নামেন্ট

অনেক সময় আপনি টুনার্মেন্টে গেম খেলেও ইনকাম করতে পারেন। যাদের নেশা গেম খেলা তারা সব সময় খোজ খবর রাখেন কোথায় কিভাবে গেম খেলা যায়। যারা খেলে ইনকাম করতে চান তাদের জন্য গেমিং টুর্নামেন্ট একটি ভালো উপায়।   অনলাইন বা অফ লাইন সব জায়গাতেই এই সুযোগ রয়েছে।

PUBG বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় একটি গেম। PUBG খেলে ইনকাম করার জন্য আপনাকে দক্ষ PUBG খেলোয়াড় হতে হবে। অনলাইন বিভিন্ন ধরণের সাইট এবং বিভিন্ন সাইবার ক্যাফেতে PUBG খেলার আয়োজন করা হয়। আপনি সেখানে রেজিস্ট্রেশন করে তাদের সাথে জয়েন করতে পারেন। রেজিস্ট্রেশন এর জন্য এন্ট্রি ফি দরকার হয়। আপনি যদি খেলায় হারেন বা আর না খেলতে চান তবে ওই ফি ফেরত পাবেন না।

গেমিং ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করে আয়

এখন তো ওয়েবসাইট খোলা একদম সহজ ব্যাপার আপনি চাইলেই আপনার কম্পিউটার বা মোবাইল ফোন দিয়ে এক ক্লিকের মাধ্যমে একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারেন। এবং সেখানে আপনার পছন্দমতো একটা থিম কাস্টমাইজ করে আপনার ভিডিও বা গেমিং এর বিষয়ে আপনার দক্ষতা শেয়ার করে টাকা আয় করতে পারেন।

গেমিং ইউটিউবার হয়ে আয়

আপনার গেমিং ভিডিও গুলোকে সুন্দর করে এডিট করতে হবে। সুন্দর করে ভিডিও এডিট করার জন্য আপনাকে ভিডিও এডিটিং এর কাজ জানতে হবে। ইউটিউবে হাজার হাজার গেমিং ভিডিও থাকে সেগুলোর মধ্যে যেনো আপনার ভিডিওটাই সব থেকে ভালো হয়। মানুষে যেনো বারবার আপনার ভিডিওটাই দেখে মনে রাখবেন আপনার গেমিং ভিডিওর ভিউ যত বেশি হবে আপনি তত বেশি টাকা আয় করতে পারবেন। এবং আপনার ইউটিউব চ্যানেলটা তত বেশি এগিয়ে থাকবে আপনার কম্পিটিটরদের চ্যানেলের থেকে।  

গেম খেলে টাকা ইনকাম

গেম খেলে ইনকাম নিয়ে মানুষের প্রশ্ন

গেম খেলে টাকা পেমেন্ট নিবো কিভাবে ?

টাকা উঠানোর জন্য আলাদা আলাদা একাউন্ট ব্যবহার করা হয়। যেমন একটা একাউন্ট হলো পেপাল। পেপালের মতো আরো অনেক একাউন্ট আছে।

বাংলাদেশের মানুষ ইনকাম করতে পারবে ?

হুম। কিন্তু কিছু জায়গাতে সীমাবদ্ধতা আছে।

গেম খেলে ইনকাম করে কি ক্যারিয়ার গড়া যাবে ?

মোটেই না। আপনাকে কখনো বলবো না আপনি এভাবে টাকা ইনকাম করুন অনলাইন থেকে। আর ক্যারিয়ার এর কথা তো বলবোই না। অনলাইনে অন্য কাজ আছে আপনি সেগুলো করতে পারেন।

আমাদের শেষ কথা

আমরা উপরে যে উপায়গুলোর কথা বলেছি। এগুলো ছাড়াও অনলাইনে আরো অনেক উপায় আছে। যেখান থেকে আপনি ভিডিও গেমিং করে টাকা আয় করতে পারবেন। ভিডিও গেইম খেলা হলো একটা নেশা বা বিনোদন। আপনি চাইলেই আপনার এই নেশা বা বিনোদনটাকে কাজে লাগিয়ে অনেকটা ইনকাম করতে পারেন। ভিডিও গেইম খেলে আপনি আপনার বিনোদনটাও উপভোগ করতে পারলেন। আর সাথে অনেক টাকাও আয় করতে পারেন। যদি আপনি ভিডিও গেইমে একজন দক্ষ এবং পারদর্শী গেইমার হয়ে থাকেন।  

আপনি চাইলে এই অনলাইনে ইউটিউবে বা ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে আপনি আপনার ক্যারিয়ার বিল্ড করতে পারেন। তবে আপনার আপনাকে আরো ভালো অনলাইন দক্ষ হতে হবে এতে কোনো সন্দেহ নেই।   অনলাইনে ঘরে বসে বাহিরে না গিয়ে তো সবাই টাকা ইনকাম করতে চাই। কিন্তু সবাই কি টাকা ইনকাম করতে পারে। যারা কেবল ধৈর্য আর পরিশ্রম করে তারাই পারে। অনলাইনে তাদের ক্যারিয়ার তৈরি করতে।  

আপনি সারা দিন অনলাইন গেম খেলে যে টাকা ইনকাম করবেন। এই সময় অনলাইনে অন্য কাজ করলে অনেক বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তাই আমরা বলবো আপনি অনলাইনে টাকা ইনকাম করার জন্য ভালো একটা কাজ বেছে নিন।   আমরা আপনাকে বলবো না আপনি গেম খেলে ইনকাম করেন। কারণ এটা একটা নেশায় পরিণত হয়ে যায়। এটা একসময় আপনার জন্য মারাক্তক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে দাঁড়াবে। আমরা শুধু বলছি ইনকাম করা যায়। তবে সবাই যে ইনকাম করতে পারবে এমনটা কিন্তু নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button