ফলের উপকারিতা

আপেলের উপকারিতা ( ৭ টি উপকারিতা জানা থাকা দরকার )

5/5 - (1 vote)

এটা আমরা সবাই জানি যে আপেল খুব সুস্বাদু একটি ফল। কিন্তু আপেলের উপকারিতা সম্পর্কে আমরা সবাই জানি না।আজকে আমরা আপেলের উপকারিতা সম্পর্কে জানবো। আপেলকে আবার অনেকেই টেবিলের শোভা বলে থাকেন। আপেলের মধ্যে আমাদের শরিরের বিভিন্ন প্রয়োজনীয় উপাদান বিদ্যমান রয়েছে। যেমন ইটোনিউট্রিয়েন্টস, এন্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন, ফাইবার এবং মিনারেলস। এসব উপাদান আমাদের শরিরকে সঠিকভাবে সচল রাখতে সহায়তা করে।

আপেল আমাদের জন্য যেমন উপকারী তেমনি অনেক দিন ধরে সংরক্ষণ করে রাখা আপেলের কিছু ক্ষতিকর দিকও রয়েছে।

আপেল কি

আপেল হলো পুষ্টিকর একটি ফল। আপেল রোসাসি (Rosaceae) পরিবারের ম্যালিয়াস ডমেস্টিকা প্রজাতির অন্তর্ভুক্ত। আমাদের কাছে এটা খুব জনপ্রিয় একটি ফল। প্রায় সারা পৃথিবীতে আপেল চাষ করা হয়। আপেলের অনেকগুলো প্রজাতির মধ্যে সব থেকে বেশি চাষ হয় জেনাস ম্যলুস (genus Malus) প্রজাতির আপেল। আপেলের প্রায় ৭৫০০ টির বেশি জাত রয়েছে। মধ্য এশিয়াকে বলা হয় আপেলের উৎপত্তিস্থল। বিভিন্ন ধর্মীয় সংস্কৃতেও রয়েছে আপেলের পৌরাণিক তাৎপর্য। মূলের কলমের মাদ্ধমে আপেলের জাতগুলো তৈরী করা হয়।

বলা হয়ে থাকে যে সকল উদ্ভিদ প্রথম চাষের অন্তর্ভুক্ত হয় তার মধ্যে আপেল অন্যতম। হাজার হাজার বছর ধরে এশিয়া এবং ইউরোপ দেশের মানুষ আপেলকে জনপ্রিয় খাবার হিসাবে চেনে। চীনে প্রায় ২০০০ এর বেশি সময় ধরে এশিয়াটিকা এবং এম প্রুনিফোলিয়া আপেলের চাষ হয়।

আরো পড়ুনঃ  তুলসী পাতার উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ বিস্তারিত বর্ণনা

দেশভিত্তিক আপেলের উৎপাদন চার্ট

পৃথিবীর প্রায় প্রতিটি দেশে আপেল চাষ করা হয়। তবে সব দেশে আপেল সমান ভাবে উৎপাদন করা যায় না। আবহাওয়া, মাটি এবং চাষাবাদের পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধার কারণে আপেলের উৎপাদন মাত্ৰা ভিন্ন হয়ে থাকে। ২০১৭ সালে মোট উৎপাদিত আপেলের পরিমান ছিল ৮১.১ মিলিয়ন টন। তুরস্ক এবং ইউরোপ এর মোট উৎপাদন ১৭% এবং চীন উৎপাদন করে ৫০% .

দেশের নামউৎপাদনের পরিমান
চীন৪১.৪ মিলিয়ন টন
যুক্তরাষ্ট্র ৫.২ মিলিয়ন টন
তুরস্ক৩.০ মিলিয়ন টন
ভারত২.৩ মিলিয়ন টন
ইতালি২.১ মিলিয়ন টন
ইরান১.৯ মিলিয়ন টন
পোল্যান্ড২.৪ মিলিয়ন টন

আপেলের পুষ্টিগুণঃ

প্রতি ১০০ গ্রাম আপেলে রয়েছে ৫২ গ্রাম কিলো ক্যালরি, শর্করা ১৩.৮১ গ্রাম, ফাইবার ২.৪০ গ্রাম, এবং আরো অনেক প্রয়োজনীয় উপাদান। আপেলের প্রায় ৮০% পানি থাকে। আপেলের মধ্যে থাকা পানি আমাদের দেহের জন্য খুব উপকারী।

  • শর্করা ১৩.৮১grams
  • চিনি ১০.৩৯ grams
  • খাদ্যআঁশ ২.৪ grams
  • চর্বি ০.১৭ grams
  • আমিষ ০.২৬ grams
  • ভিটামিন এ ৩ IUBita
  • ক্যারোটিন ২৭ আইইউ
  • লুটেইন ২৯ আইইউ
  • থায়ামিন ০.০১৭ mg
  • ভিটামিন সি ৪.৬ mg
  • ভিটামিন ই ০.১৮ mg
  • ভিটামিন কে ২.২ আইইউ
  • ক্যালসিয়াম ৬ mg
  • আয়রন- ০.১২ mg
  • ম্যাগনেসিয়াম ৫ mg
  • ম্যাংগানিজ ০.০৩৫ mg
  • ফসফরাস ১১mg
  • পটাশিয়াম ১০৭ mg
  • সোডিয়াম ১ mg
  • জিংক ০.০৪ mg
আরো পড়ুনঃ  জাফরানের উপকারিতা, পুষ্টিগুণ এবং জাফরানের দাম

Also Read:

আপেল খাওয়ার ৭ টি উপকারিতা

  • আপেলে রয়েছে ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস, ফ্লভোনইয়েডস এবং পলিফেনলিক্র যা আমাদের বডিকে সুস্থ রাখে।  
  • আপেলে রয়েছে টার্টারিক এসিড আমাদের দেহের একটি প্রয়োজনীয় এসিড।  
  • আপেলে থাকা ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য এবং হজমের সমস্যা দুর করে পেটকে সুস্থ রাখে।  
  • নিয়মিত একটি আপেল আপনার দাঁতকে সুস্থ রাখবে।  
  • আপেল বয়স্ক ব্যক্তিদের পার্কিনসন নামক রোগ থেকে রক্ষা করে।  
  • আপেল রক্তের সুগার বেড়ে যাওয়ার প্রক্রিয়াকে ধীর করে তাই ডায়াবেটিস রোগিরা মাঝারি আকারের একটি আপেল খেতেই পারেন।  
  • প্রতিদিন একটি আপেল আপনার ছোট্ট শিশুর শরিরকে সুস্থ রাখবে।
আপেলের উপকারিতা

সবুজ আপেলের উপকারিতা

সবুজ আপেলের সাথে আমরা সবাই পরিচিত। সবুজ আপেলের ও রয়েছে অসাধারণ গুনাগুন। সাধারণ আপেলের থেকে সবুজ আপেলের উপকারিতা দ্বিগুন পাওয়া যায়। দেহের পুষ্টি ভারসাম্য রক্ষার জন্য সবুজ আপেলের ভূমিকা অপরিসীম। সবুজ আপেলের কিছু উপকারিতা।

  • ওজন কমাতে সাহায্য করে। ওজন নিয়ন্ত্রণে সবুজ আপেল খুব উপকারী।
  • হাড় মজবুত করে।
  • চুলের মান উন্নত করে। চুলের উন্নতির জন্য সবুজ আপেল খাওয়া ভালো।
  • কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করে।
  • ফুসফুস ভালো রাখে।
  • দৃষ্টি শক্তি উন্নত করা
আরো পড়ুনঃ  চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম | চিয়া সিড খাবার উপকারিতা।

আপেলের কিছু সাবধানতা

  • অনেক দিন ধরে সংরক্ষণ করে রাখা আপেল কিনা থেকে বিরত থাকুন।  
  • অনেক দিন সংরক্ষণ করা আপেলে এডিবল সিনথেটিক উয়াক্স স্প্রে করা হয় যা হজম হয় না। এর ফলে আলসার বা ইনফেকশন হয়।  
  • আপেলের বিচিতে থাকে অ্যামিগডালিন নামক উপাদান যা দেহের জন্য ক্ষতিকর।

আপেলের উপকারিতা নিয়ে কিছু প্রশ্ন ও উত্তর

আপেলের রসের উপকারিতা কি ?

আপেল একটি পুষ্টিকর খাবার। আপেলের রস বা আপেলের জুস খাওয়ার অনেক উপকার রয়েছে। আপেলের রসে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা বলিরেখা দূর করতে সাহায্য করে। আপেলের রস আমাদের ত্বকের টিস্যু নষ্ট হতে দেয় না বরং নতুন টিস্যু বৃদ্ধি করে। আপেলে থাকা কপার, ক্লোরিন, জিঙ্ক মানবদেহের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে।

আপেলে কোন ভিটামিন আছে ?

ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, ভিটামিন ই, এবং ভিটামিন কে সহ আরও অনেক পুষ্টি উপাদান রয়েছে।

আমাদের শেষ কথা

আপনার শরিরকে সুস্থ এবং সুন্দর রাখতে আপনি প্রতিদিন নিয়ম করে একটি আপেল খেতেই পারেন। শরির সুস্থ রাখতে আপেল অপরিহার্য। জানেন তো প্রতিদিন একটি আপেল খেলে কোনো ডাক্তারের প্রয়োজন হয় না।

Back to top button
x
error: Content is protected !!