ইসলামিক প্রশ্ন ও উত্তর

আকিকার গোশত বন্টনের নিয়ম | আকিকার মাংস খাওয়ার নিয়ম

আকিকার গোশত বন্টনের নিয়ম | আকিকার মাংস খাওয়ার নিয়ম | আকিকার গোস্ত কতদিন খাওয়া যাবে

5/5 - (2 votes)

আকিকার গোশত বন্টনের নিয়ম | আকিকার মাংস ভাগ করার নিয়ম।

আকিকার গোসত বন্টনের নিয়ম

আমাদের দেশে আকিকার মাংস ভাগ করা নিয়ে অনেক ধরনের মত পার্থক্য রয়েছে। এখন আপনাদেরই আকিজার গোস্ত ভাগ করার যে নিয়মটি বলছি সেটি বলেছেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

আকিকার মাংস বন্টন করার নিয়ম

বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ মতে, আকিকা করার পর এর গোশত স্বাভাবিকভাবে নিজেরাও খেতে পারেন।

আত্মীয়স্বজন, পরিবার-পরিজন, বন্ধু-বান্ধব, ফকির-মিসকিনদের মধ্যেও বণ্টন করতে পারেন। এ ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট কোনো নিয়ম রাসুলের (সা.) হাদিসের মধ্যে সুস্পষ্টভাবে প্রমাণিত হয়নি।

যেহেতু এটি সবাইকে নিয়ে উৎসবের মতো একটি বিষয়, আনন্দের বিষয়, সে ক্ষেত্রে একান্ত যেসব আত্মীয়স্বজন আছে, তাদের সঙ্গে গোশত ভাগাভাগি করাই হচ্ছে উত্তম।

এ ক্ষেত্রে আপনি আকিকার গোশত ভাগ করে লোকদের মধ্যে বণ্টন করে দিতে পারেন।

আকিকার গোস্ত কতদিন খাওয়া যাবে

আকিজার গোস্ত কত খাওয়া যায় এটা জানা অত্যান্ত জুরুরি। আপনি যদি আকিকা করতে চান তাহলে আকিকার মাংস কত দিন খেতে পারবেন বা কারা খেতে পারবে সেই বিষয় জানাবো।চলুন চুরু করিঃ

আকিকা মাংস কুরবানির মতো নিয়ম অনুযায়ী খাওয়া যায়। তবে আকিকার মাংস রেখে খাওয়া উচিত নয়। আকিকার মাংস নিজ পরিবার, আত্মীয় স্বজন এবং গরীবদের মাঝে বন্টন করে দিতে হবে। এটি ফিজে রেখে অনেক দিন খাওয়া উচিত নয়।

আকিকার অনুষ্ঠান করা কি জায়েজ

আমাদের দেশে আকিকার দিন অনেকে অনুষ্ঠান করে থাকে, আকিকার দিন অনুষ্ঠানে করা জায়েজ কিনা এই সম্পর্কে অনেকে জানে না। আকিকাতে অনুষ্ঠান সম্পর্কে ইসলাম কি বলে সেই বিষয়টা নিয়ে

আকীকার দিন অনুষ্ঠান করা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ও সাহাবাগণ রাঃ থেকে প্রমাণিত নয়।

আকীকার গোস্তের হুকুম কুরবানীর গোস্তের মতই। নিজ পরিবার, আত্মীয় স্বজন এবং গরীবদের মাঝে বন্টন করার সুযোগ রয়েছে।তবে আকীকার গোস্ত বন্টন করার কথা আছারের মাঝে পাওয়া যায়।

কিন্তু অনুষ্ঠান করার প্রমাণ পাওয়া যায় না।

তবে এমনিতে আত্মীয় স্বজনকে দাওয়াত করে খাওয়ানোর মাঝে সমস্যা নেই।

Back to top button
error: Content is protected !!